Written for Future

জীবনী

মীর রবি একজন বাংলাদেশী কবি, প্রাবন্ধিক ও সম্পাদক। তার জন্ম ১৯৯৮ সালের ২৪ নভেম্বর রংপুরের পীরগাছা উপজেলার প্রতাবজয়সেন মুন্সিপাড়া গ্রামে । বাবা মীর ফজর আলী ও মা রহিমা বেগম। দুই ভাইবোনের মাঝে তিনিই একমাত্র পুত্র সন্তান।

মীর রবি সাম্প্রতিক বাংলা কবিতায় বিশেষভাবে আলোচিত নাম। মাত্র ২০বছর বয়সে প্রকাশিত প্রথম কবিতার বই দিয়ে আলোচনায় আসেন তিনি। তার প্রথম বইয়ের কবিতা পড়ে কিংবদন্তি লোকবিজ্ঞানী অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান তার সঙ্গে সাক্ষাতের আগ্রহ প্রকাশ করে ফেসবুক পোস্টে বলেছিলেন ‘আমি তরুণ কবিদের কবিতা পড়তে ভালোবাসি । হঠাৎ কাল পড়ছিলাম মীর রবির   ‘অ্যাকোয়ারিয়ামে মহীরুহ প্রাণ’ শীর্ষক কাব্যগ্রন্থ । পড়ে আমি মুগ্ধ , অভিভূত । দারুণ সব কবিতা । কবিকে অভিনন্দন । কবি আমার সঙ্গে দেখা করতে এলে খুশি হব’ ।

মীর রবি কবিতার নিরীক্ষা ও প্রচল ভাঙার মিছিলে অগ্রগণ্য। তার কবিতা ইতোমধ্যে সাহিত্য সমালোচক ও পাঠকের মাঝে সাড়া ফেলেছে। তিনি মূলত কবিতার প্রকরণ, ব্যাকরণ ও প্রাঞ্জলতার পাশাপাশি সামঞ্জস্য মিথের শব্দগভীর ব্যবহারে মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন। যা নতুন কাব্যভাষা ও ফর্ম নির্মাণে তার কবিতা হয়ে উঠেছে স্বতন্ত্র স্বর।

মীর রবির লেখালেখির শুরু স্কুল জীবন থেকেই। ক্লাস ফাইভে পড়াকালীন সময়ে কবি জসীম উদ্দিনের ‘মামা বাড়ি’ কবিতার অনুকরণে লিখেছিলেন ‘বাংলা ভাষা’ নামে একটি কবিতা। সেটাই তার বাংলা কবিতায় যাত্রা শুরু। সেই সময়টাতে তিনি ছবিও আঁকতেন। তার প্রথম কবিতা প্রকাশ পায় হাইস্কুলে পড়ার সময়ে স্থানীয় সাহিত্য সংগঠনের একটি ভাজপত্রে। এরপর স্থানীয় পত্রিকা ‘দৈনক রংপুর চিত্র’র শিশু পাতা ‘শিশুমেলা’ ও জাতীয় দৈনিক ইত্তেফাকের ‘কচিকাঁচার আসরে’ ছড়া কবিতা ও চিঠি ছাপা হতে থাকলে উৎসাহ বেড়ে যায়। বিশেষত ইত্তেফাকের সহ-সম্পাদক বরেণ্য শিশুসাহিত্যিক খালেক বিন জয়েনউদ্দিনের অনুপ্রেরণা তাকে তাড়িত করতে থাকে। শুরুটা শিশু-কিশোর ছড়া কবিতা দিয়ে হলেও তা অল্প দিনেই তাকে মূল ধারার কবিতা চর্চায় পরিপক্ব করে তোলে।

মীর রবির প্রথম কবিতার বই ‌’অ্যাকোয়ারিয়ামে মহীরুহ প্রাণ’ প্রকাশিত হয় ২০১৮ সালে। এই বইয়ের জন্য তাকে ‘সিটি-আনন্দ আলো সাহিত্য পুরস্কার ২০১৮’ প্রদান করা হয়। ২০১৯ সালে প্রকাশিত হয় ২য় বই ‘ইরেজারে আঁকা ব্ল্যাক মিউজিক’। এই বই জিতে নেয় ‘বেহুলাবাংলা বেস্ট সেলার অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’। এরপর আর তাকে থেমে থাকতে হয়নি। একে একে প্রকাশিত হতে থাকে নানান বই। অন্যান্য প্রকাশিত বই  ‘ক্রস মার্কার’ ( কবিতা ২০২০) ‘বুড়িগঙ্গা যহন কফিনে ঢুইকা যায়’ (দীর্ঘ কবিতা, ২০২১)।

মীর রবি শুধু কবিতাই লিখেন না। তিনি মুক্তগদ্য ও প্রবন্ধ রচনাতেও সিদ্ধ হস্ত। সম্পাদনাতেও সুনাম অর্জন করেছেন। স্কুল জীবনে সম্পাদনা করছেন সাহিত্য পত্রিকা ‘মঞ্জুরি’ (২০১২)। এটি দিয়েই তার সম্পাদক জীবন শুরু। এরপর সম্পাদনা করেন ছোটকাগজ ‘ঠোঙা’ (২০১৬)। ঠোঙা পাঠক ও লেখক মহলে সমাদৃত হলেও পরবর্তীতে তিনি তা বন্ধ করে দেন। যুক্ত হন কথাসাহিত্যিক মিজানুর রহমান নাসিম সম্পাদিত সাহিত্য পত্রিকা ‘মননরেখা’র সম্পাদনা পরিষদে। পরে যোগ দেন  জাতীয় দৈনিক ‘খোলাকাগজ’র সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে ( অক্টোবর ২০১৯)। অল্প দিনেই কর্পোরেট আধিপত্যের প্রতিবাদে পত্রিকার কাজ ত্যাগ করেন। স্ব-উদ্যোগে শুরু করেন শিল্প সাহিত্য ও বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চার অনলাইন পত্রিকা ‘ককপিট’। বর্তমানে ককপিটের সম্পাদনাতেই নিয়োজিত রয়েছেন।

মীর রবির শিক্ষা জীবন শুরু হয়েছিল গ্রামের স্কুলে। পঞ্চানন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাথমিক, অন্নদানগর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক, ইটাকুমারী শিবচন্দ্র রায় কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি তিতুমীর কলেজ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন।

Written for Future

মীর রবি

মীর রবি একজন বাংলাদেশী কবি, প্রাবন্ধিক ও সম্পাদক।